বৈশাখের কবিতা : শুভ্র সরকার

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

ছায়াগমন

ডুবে রয় মানুষ, জগতের নেশায়
হাওয়ার কাছে বেলুনের ঋণ থেকে
আকাশটাও প্রেম হয়

এ জীবন ক্রমশ তরঙ্গে
মুখোমুখি পায় কিছু সফলতার
যদিও অজানা আশ্চর্য! অজানা ফুলের ভাঁজ
না দেখেও সহজ মনে ভাবি
যেভাবে ঘনায়

যেমন বিপ্লব না করা সাবলীল
খাঁচার পাখিটাও
তাকে দেখে মনে হতে পারে
যেখানে আমি ছিলাম আর
আমার বিগত ভ্রমণ

মানুষ ভেঙে

কম আলোতে ঠিকরে আসছে দিন
বৃষ্টি গুঞ্জন আবহ অনেকটা

ট্রাক থেকে তরমুজ নামছে
মেইনরোড়ের পাশেই আড়ৎ

পথের সবটা জুড়েই মানুষ, মানুষ আসলে
যায় কতদূর

ভাবতে ভাবতে দিন হবে শেষ

বৈশাখ আসবার মতো করে
যেমন করে আর ফিরবে না
চৈত্র অবান্তর

স্মৃতি সংশ্লেষ

(মেঘ মুড়ায়, ইচ্ছে জাগার আগে জাগে পাখিরাও)

মরে যাই, স্মৃতি এসে লাগে
গড়িয়ে আসে ভুল স্মৃতি সংশ্লেষে
কখনো কখনো প্রশ্নব্যাথাতুর

কখনো কখনো যাপনরে লাগে
ভাতারের মতন

এদিকে মানুষ মানুষে মিশে ফর্সা হয়
অবহেলাও যথাযথ

সুন্দর বিরহ ঝরে
বৈশাখ বাজে স্থিরতম, তা-তো
পুষ্পগাছের বিস্তারে

মন্তব্য, এখানে...
Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email
শুভ্র সরকার

শুভ্র সরকার

কবি ও সম্পাদক জন্ম ৯ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭৯, ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছায়। প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থঃ বিষণ্ণ স্নায়ুবন (২০২০), "দূরে, হে হাওয়াগান" (২০২১) সস্পাদিত ছোট কাগজ : মেরুদণ্ড।