বৈশাখের কবিতা : আমিনুল ইসলাম

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email


নতুন স্বপ্ন এবং
বৈশাখের গায়েও চাঁদের রাংতা মোড়ানো

সদ্য নাবালিকাকে নিয়ে খেলা ~
জমজমাট করে তুলতেই
জনগণের প্রতিশ্রুতি বিক্রি হয়েছে বিগত শীতে

শীতল চুক্তির অন্তরাল~
নাঃ নাঃ হাতরস শুধু নয়

শীতলকুচি এবং হাঁসখালি বোলপুর বা পিংলা
এরকমই অনেক খেলার আবির…


বাতাবি লেবুগুলো যত্নের সঙ্গে
রক্তে উচ্ছ্বসিত বুদবুদ উসকে
বেরিয়ে এলো শয়তান

ফেরেস্তারা অদৃশ্য রাস্তা অবরোধ করলেও
কেউ টেরই পেল না এই মায়াজাল

কাঙ্ক্ষিত লেবুফুলের গন্ধে মোমাছি
নরকের কীট-পতঙ্গ
মানুষ হয়ে ওঠা লতাগুল্ম~ অযথা
ভীড় উপচে চোখে মেঘ ঘনায়

গভীর শূন্য অথবা খুন হয়ে যাওয়া
মর্মান্তিক এক ক্যানভাস~


বড়ো দুখের সাগরে ডুবে যেতে যেতে
একটা সংবাদ আগামীর
১লা বৈশাখের খাদ্যতালিকায় যথাযত শর্করা
এবং রাখা হবে ওয়াইন

তারপর আবার কোনও স্বপ্ন ভেঙে
যেমনটি পাহাড় কেটে কেটে পাথর
আর সেই পাথরে খোদাই হয়ে ওঠে হৃৎপিন্ড

এসময় সুখ-দুঃখ-জ্বালা সব সমার্থক ~


বিশেষদিনের আনন্দ
আমাদের হাত ফসকে গেছে

নগন্য কড়ি ছিটিয়ে বণিক ছিনিয়ে নিলেন সব

কয়েক টুকরো রুটির ঘ্রাণ ছিটিয়ে দিলেই
লেজে অনুভূতি সজাগ

লালসার জিভ একদিন বিছানায়~


তবুও দুঃখবাদ নিপাত যাক
চারিদিকে ফুলের হাসি ~

কালবৈশাখী ধূয়ে দেয় দাগ

টুকরো টুকরো কাচগুলো জোড়া লাগছে~

প্রজাপতির আত্মত্যাগ
স্বার্থহীন লিখতে হবে বৈশাখে ~

মন্তব্য, এখানে...
Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email
আমিনুল ইসলাম

আমিনুল ইসলাম

কবি